জনতার হাতে লাঞ্ছিত চন্দ্রপাড়া ফাঁড়ির ১০ পুলিশ প্রত্যাহার

বিশেষ প্রতিনিধিঃ ফরিদপুরের সদরপুর উপজেলার ঢেউখালী ইউনিয়নের চন্দ্রপাড়া ফাঁড়ির ১০ পুলিশ সদস্যকে প্রত্যাহার করে ফরিদপুর পুলিশ লাইনে সংযুক্ত করা হয়েছে। মঙ্গলবার ওই ফাঁড়ির পাঁচ পুলিশ সদস্য এলাকাবাসীর মারধরের শিকার হন। ফাঁড়িতে নতুন ১০ পুলিশ সদস্যকে পাঠানো হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে ফরিদপুরের পুলিশ সুপার মো. জাকির হোসেন খান এ সিদ্ধান্ত নেন।

মঙ্গলবার রাত ১০টার দিকে চন্দ্রপাড়া ফাঁড়ির পাঁচ পুলিশ সদস্য ঢেউখালী ইউনিয়নের চর বলাশিয়া গ্রামে বাড়ি বাড়ি গিয়ে ইলিশ আছে কি-না তা তল্লাশি করা শুরু করে। এ ছাড়া সড়ক দিয়ে যাওয়ার সময় ইলিশ তল্লাশির নামে লোকজনের ব্যাগ তল্লাশি শুরু করে। এতে এলাকাবাসী ক্ষুব্ধ হয়ে তাদের আটক করে মারধর করে। পরে ঢেউখালী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. ফারুক ব্যাপারি জনতার হাত থেকে ওই পুলিশ সদস্যদের উদ্ধার করে সদরপুর থানার ওসি লুৎফর রহমানের কাছে তুলে দেন।

ইউপি সদস্য নুসরাত জাহান জানান, ঘাট এলাকায় এসে ফাঁড়ির পুলিশ সদস্যরা জোর করে বাড়ি বাড়ি ও রাস্তা থেকে ইলিশ উদ্ধার করে আত্মসাৎ করার চেষ্টা করে। পরে এলাকাবাসী জড়ো হয়ে ওই পুলিশ সদস্যদের আটক করে।

ইউপি চেয়ারম্যান ফারুক ব্যাপারি বলেন, পাঁচ পুলিশ সদস্যকে আটকের খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যাই। তাদের মধ্যে দু'জন পুলিশের পোশাক পরিহিত ও তিনজন সাদা পোশাকে ছিলেন। পুলিশ সুপার মো. জাকির হোসেন খান বলেন, চন্দ্রপাড়া পুলিশ ফাঁড়ির ১০ সদস্যকে গতকাল সকালে প্রত্যাহার করে পুলিশ লাইনে যুক্ত করা হয়েছে। গতকালই নতুন ১০ জনকে ওই ফাঁড়িতে পাঠানো হয়েছে।

প্রতিষ্ঠাতা : মরহুম সাংবাদিক আরিফ ইসলাম।
প্রকাশক: ওয়াহিদ সোহেল।
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : ইবনে সৈয়দ পিন্টু।
নির্বাহী সম্পাদক : রাজিব খান। বার্তা সম্পাদক : রুমন রহমান
যোগাযোগ : ১০৭/১, কাকরাইল, ঢাকা-১২১৭।
ইমেইল : AmarFaridpur@gmail.com