সালথায় জাকের পার্টির ২৯তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত

আবু নাসের হুসাইন, সালথা।
ফরিদপুরের সালথা জাকের পার্টির ২৯তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত হয়েছে। বুধবার (২১ নভেম্বার) বিকাল ৪টায় উপজেলা জাকের পার্টির কার্যালয়ে কেক কেটে প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালন করেন নেতাকর্মীরা। এর আগে আলোচনা সভা ও মিলাদ-মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।

সালথায় ৩টি অবৈধ ড্রেজার মেশিনের পাইপ ধ্বংস করেছে আদালত

আবু নাসের হুসাইন, সালথা।
ফরিদপুরের সালথায় কুমার নদে ড্রেজার দিয়ে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের সময় ৩টি ড্রেজার মেশিনের পাইপ ধ্বংস করেছে ভ্রাম্যমান আদালত। এসময় ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. মাকছুদুল ইসলাম।

সালথার খারদিয়া নবনির্মিত গুচ্ছগ্রাম পরিদর্শণ করেন ইউএনও

আবু নাসের হুসাইন, সালথা।
ভূমি মন্ত্রনালয়ের অধীনে ফরিদপুরের সালথা উপজেলা যদুনন্দী ইউনিয়নের খারদিয়া মিয়াপাড়া এলাকায় গুচ্ছগ্রাম নির্মাণ কাজ প্রায় শেষের দিকে। মঙ্গলবার সকালে নির্মাণাধীন গুচ্ছগ্রাম পরিদর্শণ করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. মাকছুদুল ইসলাম।

উপজেলা প্রশাসন সুত্রে জানা যায়, ৬০ লক্ষ টাকা ব্যায়ে উপজেলার খারদিয়া মিয়াপাড়া এলাকায় গুচ্ছগ্রাম নির্মাণ করা হচ্ছে। এখানে ৪০টি ভূমিহীন পরিবার বসবাস করতে পারবে। জুলাই মাসের প্রথমদিকে উপজেলা প্রশাসন এই নির্মাণের কাজ শুরু করেন। বর্তমানে গুচ্ছগ্রামের নির্মাণাধীন ঘরের কাজ প্রায় শেষের দিকে। অল্প কিছুদিনের মধ্যে সম্পূর্ণ কাজ শেষ হবে। সেজন্য উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. মাকছুদুল ইসলাম গুচ্ছগ্রামটি পরিদর্শণ করেছেন।

সালথায় সংঘর্ষে আহত-১০: পুলিশের গুলী ও টিয়ারসেল নিক্ষেপ

সালথা প্রতিনিধি:
ফরিদপুরের সালথায় জমিজমা নিয়ে দু-দল গ্রামবাসীর সংঘর্ষে ১০ জন আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। মঙ্গলবার (২০ নভেম্বার) সকাল ৭টার দিকে উপজেলার সোনাপুর ইউনিয়নের গোপালিয়া গ্রামে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এসময় পুলিশ রাবার বুলেট ও টিয়াসেল নিক্ষেপ করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে।

সালথায় ১০ বছরে মৎস্য খাতে ব্যাপক উন্নয়ন

আবু নাসের হুসাইন, সালথা।
স্বাধীনতার ৪৬ বছর পরে বাংলাদেশ আজ মাছ উৎপাদনে স্বয়ংসম্পূর্ণ। বিগত আওয়ামী লীগ সরকারের ১০ বছরে ফরিদপুরের সালথায় মৎস্য সেক্টরে ব্যাপক উন্নয়ন হয়েছে। উপজেলা মৎস্য সম্পদ উন্নয়নে অত্যান্ত কার্যকরী ভূমিকা পালন করছে। উপজেলার ৮টি ইউনিয়নে মাছ উৎপাদনে আশানুরুপ উন্নয়ন ঘটেছে।

উপজেলা মৎস্য অফিস সুত্রে জানা গেছে, বিগত সরকারের ১০ বছরে ২০০৯ সাল থেকে ২০১৮ সাল পর্যন্ত বৃহত্তর ফরিদপুর জেলায় মৎস্য উন্নয়ন প্রকল্পের অধীনে এই উপজেলায় ১০০ জন দরিদ্র জেলের মাঝে বিনামূল্যে ছাগল বিতরণ করা হয়েছে। বন্যা নিয়ন্ত্রন ও সেচ প্রকল্প এলাকায় ও অন্যান্য জলাশয়ে সমন্বিত মৎস্য ও প্রানিসম্পদ উন্নয়ন প্রকল্প ৪র্থ পর্যায়ের অধীনে ৪ জন সুফলভোগীকে ছাগল (কিস্তিতে পরিশোধযোগ্য) প্রদান করা হয়েছে।

মৎস্য উন্নয়ন প্রকল্পের অধীনে ভাওয়াল ত্রিমোহনী হতে সালথা হাট ব্রীজ পর্যন্ত খাল পুনঃখনন করা হয়েছে। জেলায় মৎস্য উন্নয়ন প্রকল্পের অধীনে বন্যা নিয়ন্ত্রন ও সেচ প্রকল্প এলাকায় ও অন্যান্য জলাশয়ে সমন্বিত মৎস্য ও প্রানিসম্পদ উন্নয়ন প্রকল্প ৪র্থ পর্যায়ে ৪ টি পুকুর পুনঃখনন করা হয়েছে। রাজস্ব খাতের অধীনে সালথা উপজেলার বিভিন্ন খাল ও বিলে এ পর্যন্ত মোট ৫৩২০.৭০ কেজি (২,৪২,৫৪০ টি) পোনামাছ অবমুক্ত করা হয়েছে। প্রকল্প খাতের অধীনে সালথা উপজেলার বিভিন্ন খাল ও বিলে এ পর্যন্ত মোট ৮০৯৪.৮৪ কেজি (৫,২৯,১৫০ টি) পোনামাছ অবমুক্ত করা হয়েছে। জেলা মৎস্য উন্নয়ন প্রকল্পের অধীনে ১৪ টি বিল নার্সারী কার্যক্রম বাস্তবায়ন করা হয়েছে। জেলা মৎস্য উন্নয়ন প্রকল্পের অধীনে ৪ টি পেনকালচার প্রদর্শনী স্থাপন করা হয়েছে। মৎস্য উন্নয়ন প্রকল্পের অধীনে ৪ টি মৎস্য অভয়াশ্রম স্থাপন করা হয়েছে। রাজস্ব খাতের অধীনে মোট ৩৬০ জন (পুরুষ ২৯৫ জন, মহিলা ৬৫ জন)

মৎস্যচাষী/মৎস্যজীবী/মৎস্যব্যবসায়ীকে প্রশিক্ষণ প্রদান করা হয়েছে। প্রকল্প খাতের অধীনে মোট ১০৮৭ জন (পুরুষ ৮২৪ জন, মহিলা ১৮৩ জন) মৎস্যচাষী/মৎস্যজীবী/মৎস্যব্যবসায়ীকে প্রশিক্ষণ প্রদান করা হয়েছে। ইউনিয়ন পর্যায়ে মৎস্যচাষ প্রযুক্তি সেবা সম্প্রসারণ প্রকল্প (২য় পর্যায়) এর আওতায় ২৪ টি প্রদর্শনী খামার বাস্তবায়ন করা হয়েছে। মৎস্য ও মৎস্যজাত পন্যে ফরমালিন বিরোধী অভিযানে ৭০ কেজি ফরমালিনযুক্ত মাছ উপজেলা নির্বাহী অফিসারের উপস্থিতিতে পুড়িয়ে ধ্বংস করা হয়েছে। অবৈধ জাল আটক অভিযানে ৮,৫০০ মিঃ অবৈধ কারেন্টজাল জব্দ করে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের উপস্থিতিতে পুড়িয়ে ধ্বংস করা হয়েছে। জেলেদের নিবন্ধন ও পরিচয়পত্র প্রদান প্রকল্পের অধীনে ৮১৪ জন নিবন্ধিত জেলেকে আই.ডি কার্ড প্রদান করা হয়েছে। সালথা উপজেলায় মাছের উৎপাদন আরও বৃদ্ধির লক্ষ্যে আধুনিক পদ্ধতিতে পরিকল্পিত উপায়ে মাছ ও চিংড়ি চাষ, মাছের বিভিন্ন রোগ-বালাই ও তার প্রতিকার, মাছ ও চিংড়ি চাষের নতুন প্রযুক্তি সম্পর্কে মৎস্যচাষি ও জেলেদের নিয়মিত পরামর্শসেবা প্রদান করা হচ্ছে।

এছাড়াও মৎস্যচাষ বিষয়ে জনসাধারণকে আরও আগ্রহী ও উৎসাহিত করতে প্রতি মাসের ২য় বৃহস্পতিবার মৎস্য পরামর্শ দিবস ঘোষণা করে জনসাধারণকে পরামর্শসেবা প্রদান করা হচ্ছে।

উপজেলা মৎস্য অফিসার সৈকত মল্লিক বলেন, স্বাধীনতার ৪৬ বছর পরে বাংলাদেশ আজ মাছ উৎপাদনে স্বয়ংসম্পূর্ণ। এরই ধারাবাহিকতায় সালথা উপজেলা মৎস্য সম্পদ উন্নয়নে অত্যান্ত কার্যকরী ভূমিকা পালন করছে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা সরকারের সদয় দৃষ্টিতে মৎস্য সেক্টরের উন্নয়ন বিশ^বাসীর সামনে দৃষ্টান্ত স্থাপন করছে। সারাবিশ্বের মধ্যে মাছ উৎপাদনে ৪র্থ, প্রাকৃতিক মাছ উৎপাদনে ৩য় অবস্থানে রয়েছে বাংলাদেশ। সালথা উপজেলায় অভয়আশ্রম স্থাপন, বিল নার্সারী স্থাপন, পোনা অবমুক্তকরণ কর্মসূচি, মৎস্য আইন বাস্তবায়ন ও জেলেদের মাঝে আইডি কার্ড বিতরণের মতো সফল কর্মসূচির মাধ্যমে মৎস্য সম্পদ সংরক্ষণ, উৎপাদন বৃদ্ধি এবং কর্মসংস্থান সৃষ্টিতে অন্যান্য ভূমিকা রয়েছে। ভবিষ্যতে সালথা উপজেলা মৎস্য সেক্টরের উন্নয়ন আরো বেগবান হবে বলে আশা করা যাচ্ছে।

সালথা উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. মাকছুদুল ইসলাম বলেন, আমাদের সালথা উপজেলায় বেশ কিছু জলাশয় মৎস্য অভয়াশ্রম ঘোষনা করা হয়েছে। তম্মধ্যে ভাওয়াল মৎস্য অভয়াশ্রম উল্লেখযোগ্য। সালথা উপজেলা দেশীয় মাছের জাত সংরক্ষণে অগ্রণী ভূমিকা পালন করছে। নিজস্ব চাহিদা মিটিয়ে জাতীয় চাহিদা পূরণে যথেষ্ট ভূমিকা রাখছে। মৎস্যজীবীদের এ অবদান সালথাবাসীর জন্য অত্যান্ত গৌরবের। ভবিষ্যতে উপজেলা প্রশাসন মৎস্যজীবীদের প্রশিক্ষণের মাধ্যমে এধারা অব্যাহত থাকবে।

প্রতিষ্ঠাতা : মরহুম সাংবাদিক আরিফ ইসলাম।
প্রকাশক: ওয়াহিদ সোহেল।
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : ইবনে সৈয়দ পিন্টু।
নির্বাহী সম্পাদক : রাজিব খান। বার্তা সম্পাদক : রুমন রহমান
যোগাযোগ : ১০৭/১, কাকরাইল, ঢাকা-১২১৭।
ইমেইল : AmarFaridpur@gmail.com