দৌলতদিয়া ঘাটে ঢাকাগামী পরিবহনের তিন কিলোমিটার যানজট

নিজস্ব প্রতিবেদক, আমার ফরিদপুর।

দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌ-রুটে বুধবার সকাল থেকেই রাজধানীতে কর্মস্থলমুখী যাত্রীদের উপচেপড়া ভিড় শুরু হয়েছে। লঞ্চ এ যাত্রীর চাপ বেশি।

ঈদুল ফিতরের ছুটি শেষে দক্ষিণাঞ্চলের বিভিন্ন জেলার কর্মজীবী মানুষ আবারও রাজধানীতে ফিরতে শুরু করায় দৌলতদিয়া ফেরিঘাটে বাসের লাইন ক্রমেই দীর্ঘ হচ্ছে।

দুপুরের পর থেকে ঢাকাগামী বাসগুলো নদী পাড়ি দেয়ার অপেক্ষায় দৌলতদিয়া ঘাটে আসার পর আটকা পড়েছে। প্রচণ্ড রোদ ও গরমে এসব বাসের যাত্রীদের অনেক কষ্টও সহ্য করতে হচ্ছে।

অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন সংস্থার দৌলতদিয়া কার্যালয়ের সহকারী ব্যবস্থাপক আবু আব্দুল্লাহ রনি বলেন, ঈদের ছুটির পর গত দুই দিন দৌলতদিয়া ঘাটে যানবাহনের কোন চাপ ছিল না। তবে বুধবার সকাল থেকেই গাড়ি ও যাত্রীর প্রচণ্ড চাপ বাড়তে থাকে। বেলা গড়ানোর সঙ্গে সঙ্গে যানবাহনের লাইন প্রায় তিন শতাধিক যাত্রীবাহী ও শতাধিক ছোট গাড়ির জট প্রায় তিন কিলোমিটার পর্যন্ত ছাড়ায়।

ঈদের ছুটিতে বাড়িতে আসা মানুষ অফিস আদালত খোলার কারণে পর গত সোমবার আবারও ফিরতে শুরু করেছে রাজধানীতে। এসব বাসে করে তারা ঢাকায় যাচ্ছেন।

যাত্রী চাপ বেশি থাকায় লঞ্চে ধারণ ক্ষমতার চেয়ে বেশি বোঝাই হয়ে পদ্মা পাড়ি দেয়ার বিষয়টি স্বীকার করে ঘাট এলাকায় কর্তব্যরত বিআইডব্লিউটিএর কর্মকর্তারা বিষয়টি ‘সহনীয় লোড' বলছেন। লঞ্চে ভিড় বেশি থাকায় যাত্রী নিয়ন্ত্রণে পুলিশ, বিআইডব্লিউটিএ, ফায়ার সার্ভিস, আনসার সদস্যরা তৎপরতা চালিয়ে যাচ্ছেন।

এদিকে দক্ষিণাঞ্চলের সকল জেলা থেকে ছেড়ে আসা যানবাহনের সাথে সাথে এ রুটের ফেরি, লঞ্চ বাড়তি ভাড়া আদায়ের অভিযোগ রয়েছে।

বিআইডব্লিউটিসির দৌলতদিয়া ঘাটের সহকারী ম্যানেজার মো. রুহুল আমিন বলেন, পানি বৃদ্ধি পেয়ে স্রোতের গতি বেড়ে যাওয়ায় ফেরি ও লঞ্চ পারপারে সময় বেশি লাগছে।

প্রতিষ্ঠাতা : মরহুম সাংবাদিক আরিফ ইসলাম।
প্রকাশক: ওয়াহিদ সোহেল।
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : ইবনে সৈয়দ পিন্টু।
নির্বাহী সম্পাদক : রাজিব খান। বার্তা সম্পাদক : রুমন রহমান
যোগাযোগ : ১০৭/১, কাকরাইল, ঢাকা-১২১৭।
ইমেইল : AmarFaridpur@gmail.com